অ্যাপেল কার্ড কি? একটি স্মার্ট ক্রেডিট কার্ড

ক্রেডিট কার্ড নাম নিশ্চয় শুনেছেন, আমাদের অনেকের কাছেই হয়ত ক্রেডিট কার্ড আছেও। তবে স্মার্ট ক্রেডিট কার্ড কয়জনের কাছে আছে? কি? স্মার্ট ক্রেডিট কার্ড! কল্পনা করেছেন সত্য, তবে কখনও দেখেননি তাইতো? অ্যাপেল ক্রেডিট কার্ড হল বর্তমান সময়ের একটি স্মার্ট ক্রেডিট কার্ড।

অ্যাপেল ক্রেডিট কার্ড কি?

আগস্ট মাসে অ্যাপেল তাদের এই অ্যাপেল কার্ডটি বাজারে লঞ্চ করে। অ্যাপেল কার্ড তথা অ্যাপেল ক্রেডিট কার্ডটি অ্যাপেল পে এর সাথে লিঙ্ক করা এবং আইফোনের ওয়ালেট অ্যাপ দিয়েই এর সবকিছু তদারকি করা সম্ভব। কার্ডটিকে অ্যাপেল পে এর জন্য বিশেষভাবে অপ্টিমাইজড করা হলেও এটি কিন্তু একটি সাধারন ক্রেডিট কার্ড হিসেবেও কাজ করবে। অ্যাপেল তো আর ব্যাংক বা কোন ফিন্যান্সিয়াল সংস্থা নয়, তাই তারা মাস্টারকার্ড এবং গোল্ডম্যান স্যাচ নামক আমেরিকান একটি ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকিং কর্পোরেশন এর সাথে মিলে তাদের এই অ্যাপেল কার্ডকে বাস্তবে রূপ দিয়েছে। গোল্ডম্যান স্যাচ এর পাশাপাশি যেহেতু মাস্টারকার্ডএর সাথেও পার্টনারশিপ আছে তাই নিঃসন্দেহে এই কার্ড পৃথিবীর যেকোনো মাস্টারকার্ড আউটলেটেও সাপোর্ট করবে।

এতে বাম পাশে উপরের দিকে অ্যাপেল লোগো, নিচে আপনার নাম এবং ডান পাশে একটি চিপ দেখা যাবে। কার্ডটা পুরোটা তৈরি টাইটেনিয়াম দিয়ে, আর এর অপর যে আপনার নাম থাকছে তা লেজার-কাটে লেখা থাকবে ।
এতে বাম পাশে উপরের দিকে অ্যাপেল লোগো, নিচে আপনার নাম এবং ডান পাশে একটি চিপ দেখা যাবে। কার্ডটা পুরোটা তৈরি টাইটেনিয়াম দিয়ে, আর এর অপর যে আপনার নাম থাকছে তা লেজার-কাটে লেখা থাকবে ।

অ্যাপেল কার্ড এর ডিজাইন

যেহেতু ডিজিটালি নয়, অ্যাপেল এবার আপনাকে একটি ফিজিক্যাল কার্ড দিচ্ছে, তো অন্যসব প্লাস্টিক কার্ড এর থেকে এতে তো কিছু আলাদা ব্যাপার থাকতেই হবে তাইনা? অ্যাপেল কার্ড দেখতে পুরোপুরি সাদা, এবং এটি টাইটেনিয়াম দিয়ে তৈরি একটি কার্ড। এতে বাম পাশে উপরের দিকে অ্যাপেল লোগো, নিচে আপনার নাম এবং ডান পাশে একটি চিপ দেখা যাবে। কার্ডটা পুরোটা তৈরি টাইটেনিয়াম দিয়ে, আর এর অপর যে আপনার নাম থাকছে তা লেজার-কাটে লেখা থাকবে ।

অ্যাপেল কার্ড যারা নিতে পারবে

আগস্টের আগে কার্ড লঞ্চ করার আগে অ্যাপেল কেবল তাদের কর্মকর্তা এবং বিশেষ কিছু কাস্টমারদের জন্য কেবল  এই অ্যাপেল কার্ড সাইনআপ করার সুযোগ দিয়েছিল। অ্যাপেল ইউজার দের জন্য এই অ্যাপেল কার্ড সাইনআপ করা হবে খুবই সহজ । সাইন আপ করতে আইফোনে ওয়ালেট অ্যাপ থেকে কার্ড ইন্টারফেস এর অপর ট্যাপ করতে হবে, বেশিরভাগ তথ্য এখানে ব্যবহারকারীর অ্যাপেল পে এবং অ্যাপেল আইডি থেকেই নেয়া হবে। অ্যাপেল কার্ড নিতে আপনার বয়স অবশ্যই ১৮ বা তার বেশি হতে হবে এবং আপনাকে এখন আপাতত আমেরিকার নাগরিক হতে হবে। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যেটা থাকতেই হবে, তা হল একটি আইফোন যেটা আইওএস ১২.৪ বা তারও আপগ্রেড ভার্সনে আছে বা ভবিষ্যতে আসবে।