গুগল ও ফেসবুক বিজ্ঞাপন সেবা : অনলাইন মার্কেটিং এর দুই জায়ান্ট

Mobile marketing and online store concept flat icons. Full circle of online-shopping with mail menu of wide range products, product research, basket, pay per click, call center, delivery.

ফেসবুক – গুগল এর মতন কোম্পানির জন্য স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, কম্পিউটারের সার্বজনীনভাবে ইন্টারনেট ব্যবহারের নতুন নতুন অধ্যায় রচিত হয়েছে। এসব কোম্পানির সাক্সেস মানে প্রযুক্তি জগতে নতুন কিছু বিপ্লব দেখা। অবিশ্বাস্বরূপে এই দুইটি কোম্পানি তাদের দিক দিয়ে প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন এর কাজ করে যাচ্ছে।

নির্ভরযোগ্য সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে মানুষ গুগল এর ওপর বিগত কয়েক বছর ধরে অনেক বেশি নির্ভরশীল। তাছাড়াও গুগল মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম, ইমেইল সেবা, ভিডিও টেকনোলজি(ইউটিউব), সামাজিক মাধ্যম (গুগল প্লাস) পরিচালনা করছে। ২০১২ সাল থেকে ফেসবুক এর বিশ্বব্যাপী পরিচিতি হয় একটি পূর্নাঙ্গ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে।

সেসময় ফেসবুক পরিবার, কলিগ, বন্ধুদের সাথে যোগাযোগ এর সহজ-নেভিগেশনাল ওয়েবসাইট হিসেবে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। সামাজিক মাধ্যমের জায়গায় ফেসবুক বিজয়ী হলেও; ফেসবুক – ইন্সটাগ্রাম, হোয়াটস অ্যাপ, অকুলাস ভি আর এর মতন প্রতিস্থান ও অ্যাপ ক্রয় করে নেয়।

এই দুই কোম্পানির অব্যার্থ সাফল্য তাদের বর্তমান বাজারে প্রবেশ করার বিশাল সুযোগ করে দিয়েছে। যেখানে, ওয়েব বেসড সার্চ ইঞ্জিন এবং সামাজিক মাধ্যম এই কোম্পানির বিরাট সাফল্য। সেখানে, এই দুটি কোম্পানির আয় ব্যাপকভাবে বাড়ছে এডভারটাইজিং সার্ভিস বা বিজ্ঞাপণ সেবা প্রদান এর মাধ্যমে।

এক বৃহৎ জনসংখ্যা নিয়ে, গুগল ও ফেসবুক উভয়ই পে-পার-ক্লিক (Pay-Per-Click) বিজ্ঞাপণ সার্ভিস অনেক আগে থেকে প্রদান করে আসছে। বর্তমানে এই উভয় বৃহৎ দুটি কোম্পানির বিজ্ঞাপণ সেবা মোবাইল এডভারটাইজিং এ বেশী গুরুত্ব দিয়েছে।

Google Adwords & Adsense (এডওয়ার্ড-এডসেন্স)

বছরে গুগল এর ৯০% আয় আসে এই বিজ্ঞাপণ সেবা এডওয়ার্ড ও এডসেন্স থেকে। একে বলা চলে গুগলের জ্বালানী। গুগল এডওয়ার্ড একটি অনলাইন এডভারটাইজিং সিস্টেম; যেখানে তারা কোম্পানিকে সুযোগ দেয় – নতুন গ্রাহক দর্শক আনার ক্ষেত্রে। কোম্পানি তাদের বিজ্ঞাপণ দেখানের জন্য এখানে বিভিন্ন প্লেসমেন্ট এর জন্য বিড (Bid) করে এবং বিভিন্ন শ্রেনীর ওয়েবসাইটের জন্য কী-ওয়ার্ড সেট করে রাখে।

মূলত সাধারন মানুষ যে সকল কীওয়ার্ড সার্চ করে; সে সব কীওয়ার্ডে বেশী মনোযোগ দেয়। এখন বিভিন্ন কোম্পানি কতৃক সেট করা কীওয়ার্ডে মানুষ যখন সার্চ করবে – তখন সার্চ রেজাল্টের প্রথমে সেই কোম্পানির বিজ্ঞাপণ চলে আসবে।

CPC বা কোস্ট পার ক্লিক ভিত্তিতে বিজ্ঞাপনদাতা কোম্পানিকে তখনই টাকা দিতে হবে; যখন কেবল তাদের বিজ্ঞাপণে ক্লিক করা হবে। একইভাবে, যেখানে গুগল এডওয়ার্ড প্লেসমেন্ট দিচ্ছিলো কীওয়ার্ড অনুযায়ী গুগল এর সার্চপেজে, অন্যদিকে গুগল এডসেন্স প্লেসমেন্ট দেয় বিভিন্ন ব্লগ এবং ওয়েবসাইটর গুলোতে।

যেসব ওয়েবসাইট ও ব্লগ এডসেন্স এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপণ প্রদর্শন করার; তারা গুগল রেভেনিউ শেয়ারিং প্রোগ্রাম এর মাধ্যমে টাকা আয় করে থাকে। এখানে পাবলিশার ৬৮% রেভেনিউ পায় কনটেন্ট এড থেকে এবং ৫১% পায় সার্চ এড থেকে।

Facebook Ads

একইভাবে, ফেসবুক বিভিন্ন কোম্পানির বিজ্ঞাপণ বিপুল পরিমান টার্গেটেড দর্শক এর মাঝে প্রদর্শন করানোর মাধ্যমে রেভেনিউ আয় করে। ফেসবুক এর এই রেভেনিউ আাসে ওয়েবসাইট এবং মোবাইল এডভারটাইজিং প্রদর্শন থেকে। গুগল এডওয়ার্ডস এর বিপরীতে, এখানে ফেসবুক টার্গেট করে প্রতিটি ইউজার প্রোফাইলকে।

এখানে বিজ্ঞাপনদাতার বয়স, লিঙ্গ, দেশ, শহর ইত্যাদি নির্বাচন করে বিজ্ঞাপণ দেয়ার ক্ষমতা থাকে। এখানে দর্শক সেই বিজ্ঞাপনকে পছন্দ ও তাতে টিউমেন্ট দেয়ারও ক্ষমতা রাখে; গুগলে যা নেই। যেখানে গুগলে টার্গেট করতে হয়; ওয়েবসাইট বা কীওয়ার্ডকে। সেখানে ফেসবুকে বিজ্ঞাপনদাতা গণ সরাসরি টার্গেট করতে পারে মানুষকে।

Mobile Advertising

বিগত ১০ বছরে মোবাইল প্রযুক্তি ভোক্তা বা গ্রাহক সমাজের মধ্যে পন্য পৌছে দেয়ার ক্ষেত্রে একটি দিগন্ত উন্মোচিত করেছে। বর্তমানে যেসব কোম্পানি ডিজিটাল মার্কেটিং করে; মোবাইল এডভারটাইজিং তাদের অন্যতম টার্গেট।

বর্তমানে এই মোবাইল এডভারটাইজিং এর প্রতিযোগিতা দুটি কোম্পানিতে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে। একটি গুগল এবং অন্যটি ফেসবুক। বর্তমানে গুগল ৪৩.৩% মোবাইল এড রেভেনিউ এবং ফেসবুক ১৩.৬% শতাংশ পরিচালনা করছে।

সম্প্রতি ফেসবুক একটি মোবাইল এড প্লাটফর্ম “অডিয়েন্স নেটওয়ার্ক” লঞ্চ করেছে। যারা বিজ্ঞাপণ ক্যাম্পেইন গুলোকে ফেসবুক এবং তৃতীয় পক্ষ মোবাইল অ্যাপস গুলোতে প্রদর্শন করাচ্ছে। অন্যদিকে, মোবাইল অ্যাপস কে কেন্দ্র করে গুগল এর মোবাইল এডভারটাইজিং নেটওয়ার্ক ” এডমব”। যারা ২০১০ থেকে কাজ করে আসছে এবং বর্তমানে প্রায় ৬ লক্ষ ৫০ হাজার অ্যাপসে সক্রিয়।

Wrapping Up

গুগল এডস এবং ফেসবুক এডস; কোনটি তাহলে বড় হয়ত ধারনা করেই ফেলেছেন। নিঃসন্দেহে গুগল হল এই মার্কেটে সেরা। ২০১৩ সালে গুগল ৫০.৫ বিলিয়ন ডলার রেভেনিউ পায়; কেবল এই এডভারটাইজিং থেকে। ৮.৮৫ বিলিয়ন টাকা পায় কেবল মোবাইল এডভারটাইজিং থেকে।

গুগল এর মতন ফেসবুকের রেভেনিউ ও মূলত এই এডভারটাইজিং থেকে। ২০১৩ সালে ফেসবুকের মোট রেভেনিউ থেকে কেবল ৭ বিলিয়ন ডলারই ছিল বিজ্ঞাপণ থেকে। গুগল এর থেকে কম হলেও; কর্মচারী যেহেতু গুগল এর চেয়ে কম – তাই ফেসবুক ও কম লাভবান নয়। ফেসবুক এর এই রেভেনিউ যে আরও কয়েকগুণ বেড়ে যাবে; এব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই।