পুরাতন ওয়াইফাই রাউটারকে ৭টি কাজে লাগান

পুরাতন রাউটারকে ৭টি কাজে লাগান

আমাদের অনেকের বাসা কিংবা অফিসে হয়ত এক বা একাধিক পুরাতন রাউটার পরে থাকে।  এই আর্টিকেলে আলোচনা করব আপনি আপনার পুরাতন ফেলে রাখা ওয়াইফাই রাউটার দিয়ে কি কি করতে পারেন।  একনজরে আমরা আমাদের টপিকটি আলোকপাত করি, তবে আপনি আপনার পুরাতন রাউটার দিয়ে এইসব কাজ করতে পারেনঃ

  • গেস্ট ওয়াইফাই কানেকশন
  • ওয়ারলেস রিপিটার
  • নেটওয়ার্ক সুইচ হিসেবে ব্যবহার
  • ইন্টারনেট রেডিও
  • মিডিয়া সার্ভার তৈরি করা
  • হোম ওয়েব সার্ভার তৈরি
  • টাকা আয় করতে পারেন

গেস্ট ওয়াইফাই কানেকশন

আপনি দেখছেন আপনার ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক আশেপাশের মানুষও ব্যবহার করছে, অথবা আপনার বাসায় বা অফিসে নতুন অনেক মানুষ এসেছে, তারা আপনার ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছে। তো আপনি আপনি কেনো নিজের পার্সোনাল নেটওয়ার্ক এভাবে শেয়ার করে নিজের সাথে আপস করবেন? তাদেরকে একটি আলাদা নেটওয়ার্ক দিয়ে দিন।  হ্যা, আর এই আলাদা নেটওয়ার্ক আপনি তৈরি করবেন পরে থাকা পুরাতন  রাউটারটি দিয়ে।  এটা অনেকটা ওয়াইফাই রিপিটার প্রোজেক্ট এর মতই।  তবে এখানে আপনার পুরাতন ওয়াইফাই রাউটারটি একটি পাসওয়ার্ড সুরক্ষিত নেটওয়ার্ক এর সাথে যুক্ত থাকবে, তবে এর আওতায় ডিভাইসগুলোকে পাসওয়ার্ড ছাড়াই প্রবেশ করার অনুমতি দিবে।

অনেক সময় বাসায় বা অফিসে আপনার নিজস্ব ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক এর অধিনে অনেক স্মার্টহোম ডিভাইস, টেলিভিশন, এসি ইত্যাদি যন্ত্রপাতি যুক্ত করা থাকে।  আর এভাবে আপনার পুরাতন রাউটার দিয়ে বাইরের মানুষদের একটি আলাদা নেটওয়ার্ক করে দেয়ার মাধ্যমে তারা আপনার এসব যন্ত্রপাতির সাথে যুক্ত হতে পারবে না।

ওয়ারলেস রিপিটার

আপনার ওয়াইফাই রেঞ্জ বাড়াতে চাচ্ছেন? এসময় টাকা দিয়ে আলাদা  কোন ওয়াইফাই রিপিটার কেনার চেয়ে আপনার পুরাতন রাউটারকে ব্যবহার করাই সবচেয়ে উত্তম হবে।  আপনার চালু রাউটারের ওয়ারলেস সিংনাল এর সাথে আপনার পুরাতন রাউটারকে সংযুক্ত করে, খুব সহজেই আপনার কাভারেজ বাড়াতে পারেন।

নেটওয়ার্ক সুইচ হিসেবে ব্যবহার

বেশিরভাগ রাউটারেরই ৪ টা করে ইথারনেট পোর্ট থাকে। আর এই ইথারনেট পোর্ট এর মাধ্যমে আপনার অফিস বা বাসার অনেক সময় ৪ টির বেশি টেলিভিশন কিংবা কম্পিউটার এর মত ডিভাইসকে সংযুক্ত হতে পারে।  সেক্ষেত্রে আপনার পুরাতন রাউটার কিন্তু খুব সহজেই একটি নেতওরক সুইচ এর কাজ করতে পারে।  আপনি আপনার পুরাতন রাউটারকে আপনার চালু রাউটারের ল্যান পোর্টের সাথে কিংবা তারহীনভাবে সংযুক্ত করে খুব সহজেই আপনার বাসার এভেইলেবল ল্যান পোর্টের সংখ্যা এক্সটেন্ড করতে পাচ্ছেন।

ইন্টারনেট রেডিও

আপনি কিন্তু আপনার পছন্দের রেডিও স্টেশন আপনার রাউটারের মাধ্যমে ইন্টারনেটেও শুনতে পারবেন।  আর এই জন্য আপনার প্রয়োজন হবে OpenWRT এর মত কাস্টম রাউটার ফ্রেমওয়ার্ক এবং কিছু সফটওয়্যার।  অতঃপর আপনি আপনার রাউটারের সাথে ইউএসবি সাউন্ডকার্ড লাগিয়ে আপনার রাউটার ব্যবহার করে রেডিও স্ট্রিমিং করতে পারবেন।

মিডিয়া সার্ভার তৈরি করা

আপনার পুরাতন রাউটারে সাথে যদি ইউএসবি পোর্ট থাকে, তবে আপনি আপানার পুরাতন রাউটারকে একটি মিডিয়া সার্ভার হিসেব ব্যবহার করতে পারবেন।  কিভাবে? খুবই সহজ, আপনার পুরাতন রাউটারের সাথে আপনি একটি পোর্টেবল ইউএসবি হার্ডড্রাইভ কিংবা পেনড্রাইভ লাগিয়ে, সেই লাগানো ড্রাইভে সংরক্ষিত মিডিয়া ফাইলকে রাউটারের সাথে সংযুক্ত সকল ডিভাইস এর মাঝে খুবই সহজে দেয়ার করতে পারবেন।

 হোম ওয়েব সার্ভার তৈরি

OpenWRT এর মত কাস্টম রাউটার ফ্রেমওয়ার্ক রাউটারে ইন্সটল করে আপনি আপনার হোম ওয়েব সার্ভারও তৈরি করতে পারবেন।  আর এখানে পানি আপনি আপনার রাউটারের সাথে কানেক্টেড হার্ডড্রাইভে ওয়ার্ডপ্রেসও ইন্সটল করতে পারবেন, যা আপনার বাসা কিংবা অফিসে সেই রাউটারে যারা কানেক্ট হবে তারা ভিজিট করতে পারবে।

টাকা আয় করতে পারেন

আপনার পুরাতন রাউটার থেকে লাভবান হবার জন্য এটি অন্যতম আরেকটি সহজ পন্থা।  আপনি যদি আপনার পুরাতন রাউটার নিয়ে এতসব প্রোজেক্ট এর ঝক্কি ঝামেলা পোহাতে না চান, তবে অনায়াসে আপনার রাউটারটি অনলাইনে বিক্রি করে দিন।  আপনি এক্ষেত্রে বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপ কিংবা বিক্রয় ডট কম এর মত ওয়েবসাইটে আপনার রাউটারটিকে বিক্রি করে দিতে পারেন।


এটি কোন টিউটরিয়াল ধর্মী আর্টিকেল নয়, আপনি এই সব সম্পর্কিত অনেক আর্টিকেল ইন্টারনেটে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে এবং সর্বোপরি ইউটিউবে অনেক ভিডিও টিউটরিয়াল পাবেন, সেখান থেকে আপনি অনায়াসে এসব শিখে নিতে পারবেন।  পরিশেষে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য একান্ত ধন্যবাদ।