ডিভাইস রিভিউ

শাওমি লঞ্চ করল তাদের মি ওয়াচ : স্ন্যাপড্রাগন চিপ সমৃদ্ধ প্রথম ৪জি স্মার্টওয়াচ

এতে পাওয়া যাবে স্মার্টওয়াচ এর জন্য বিশেষভাবে ডিজাইন করা মিইউআই কাস্টম রম

মি ব্যান্ড ৩ এবং মি ব্যান্ড ৪  এর মত সফল স্মার্ট ফিটনেস ব্যান্ড আনার পর এবার শাওমি প্রবেশ করল স্মার্টওয়াচ এর মার্কেটে। সম্প্রতি শাওমি লঞ্চ করেছে তাদের ফার্স্ট এভার স্মার্টওয়াচ ‘মি ওয়াচ’। এটি একদম অ্যাপেল এর অ্যাপেল ওয়াচ এর মত হলেও, এটি অ্যাপেল ওয়াচ নয়। শাওমি তাদের কোন প্রোডাক্ট আনার আগে তা তাদের নিজেদের স্বদেশ এর বাজারে ছাড়ে, আর এই মি ওয়াচ এর বেলাতেও তার বিকল্প করল না। তবে দারুন ব্যাপার হচ্ছে যে শাওমি এর এই ‘মি ওয়াচ’ আসবে গুগল এর ওয়্যার ওএস এর সাথে।

ওয়্যার ওএস

ওয়্যার ওএস

শাওমি এবার কেবল তাদের এই স্মার্টওয়াচ এর হার্ডওয়্যারের দিকেই নজর দেয়নি, বিশেষ নজর দিয়েছে এর ইনার ইউজার ইন্টারফেস এর দিকেও। মি ওয়াচ এর মাধ্যমে শাওমি ব্যবহারকারীদের মাঝে পরিচয় করে দিচ্ছে ‘মিইউআই ফর ওয়াচ’ কে। সুতরাং শাওমি এর স্মার্টফোন ডিভাইস এর জন্য জনপ্রিয় যে  কাস্টম রম মিইউআই বিশ্বব্যাপি জনপ্রিয়, মি ওয়াচ এর মাধ্যমে এখন মিইউআই এর ওয়াচ ভার্সনকেও শাওমি অবমুক্ত করল।

এতে পাওয়া যাবে স্মার্টওয়াচ এর জন্য বিশেষভাবে ডিজাইন করা মিইউআই কাস্টম রম

এতে পাওয়া যাবে স্মার্টওয়াচ এর জন্য বিশেষভাবে ডিজাইন করা মিইউআই কাস্টম রম

সুতরাং সফটওয়্যারগত দিক দিয়ে শাওমি ওয়াচে পাওয়া যাবে গুগল এর ওয়্যার ওএস এবং তাদের নিজস্ব মিইউআই।

এমনকি ৪০ টির মত জনপ্রিয় চাইনিজ অ্যাপস ইনিসিয়ালি মি ওয়াচ এর জন্য বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়েছে, আর মজার ব্যাপার হচ্ছে এর মধ্যে টিকটক’ ও রয়েছে। ওয়াচটির ভেতর থাকা শাওমি অ্যাপস্টোর থেকে সব অ্যাপস গুলোকে ডাউনলোড করা যাবে।

শাওমি ওয়াচকে আপনি যদি অ্যাপেল ওয়াচ এর স্কয়ার বডি ভার্সন বলেন তাহলে কিন্তু ভুল হবে না। স্কয়ার বডি হলেও এতে আপনি পাবেন রাউন্ডেড কর্নার। এর ডান সাইডে অ্যাপেল ওয়াচ এর মতই একটি স্ক্রলিং ক্রাউন এবং একটি বাটন পাওয়া যাবে। স্মার্টওয়াচটি আসছে ১.৭৮ ইঞ্চি অমলেড ডিসপ্লে এর সাথে, সুতরাং ডিসপ্লে এর দিক দিয়ে এই স্মার্টফোনটি হবে অনবদ্য নিঃসন্দেহে।

ওয়াচটির উভয় পাশে আপনি পাবেন মাইক্রোফোন এবং বাম পাশে পাবেন একটি লাউড স্পিকার। আর পিছে বরাবরের আগের ফিটনেস ব্যান্ড এর মত চারজিং পিন এবং হার্ট রেট মনিটর সেন্সর তো পাবেনি। এটি ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট করবে না।  স্মার্টওয়াচটির বডি নির্মিত ম্যাট ফিনিস সম্পন্ন এলুমিনিয়াম দিয়ে। আর এর স্ট্রিপ বা ফিতা আপনি খুলে বদলানোর সুযোগ তো পাবেনি।

চার্জ দেয়ার এর বক্সে পাওয়া যাবে একটি ডক চার্জার।

চার্জ দেয়ার এর বক্সে পাওয়া যাবে একটি ডক চার্জার।

স্মার্টওয়াচটিতে পাওয়া যাবে স্ন্যাপড্রাগন ওয়্যার ৩১০০ মডেলের ৪জি চিপসেট, যা স্ন্যাপড্রাগন এই ‘মি ওয়াচ’ এর মাধ্যমেই প্রথম অবমুক্ত করল। তাছাড়া এর সাথে এতে থাকছে কর্টেক্স এ৭ কোয়াড কোর তথা ৪ কোর সমৃদ্ধ ১.২ গিগাহার্জ এর প্রসেসর। এতে থাকছে ৫৭০ এমএএইচ ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাটারি, আর শাওমি বলছে এটি টানা ৩৬ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম।

মজার ব্যাপার হচ্ছে আপনি এতে ৪জি ই-সিম ব্যবহার করে স্মার্টফোন ছাড়াই সকল সেলুলার কর্মকাণ্ড সম্পন্ন করতে পারবেন। অর্থাৎ ইন্টারনেট ব্রাউজ করা, ফোন করা কিনবা মেসেজিং করা যাবে এই মি ওয়াচ দিয়েই, আর যা একে রূপান্তরিত করেছে একটি পরিপূর্ণ স্মার্টওয়াচে। স্মার্টওয়াচটিতে ওয়াইফাই, জিপিএস, ব্লুটূথ এবং এনএফসি সুবিধাও থাকবে। আর ফিটনেস ফিচারস এর ভেতর থাকবে হার্ট রেট, বডি অক্সিজেন মিটার, স্লিপ ট্র্যাকিং ইত্যাদি সচরাচর ফিটনেস ট্র্যাকারে যা থাকে আরকি। ভারতের বাজারে এর দাম হবে আনুমানিক  ১৩০০০ রুপি।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

ফন্ডঅফটেক একটি বাংলাদেশ ভিত্তিক টেকনোক্র্যাট নিউজ পোর্টাল। আমরা এই প্ল্যাটফর্মে বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তি ভিত্তিক মানসম্মত কনটেন্ট প্রকাশ নিয়মিত প্রকাশ করার চেষ্টা করে থাকি।

আমাদের স্লোগান, 'প্রযুক্তি সংবাদ, যেটা মূল্য রাখে।'

To Top